স্কিন কেয়ার

মিল্ক ফেসিয়াল: দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন

দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন নিতে হলে আমাদের এই পোস্টে দেয়া গাইডলাইন গুলো ভালোভাবে জেনে নিন। মুখের পুরানো ব্রণের দাগ থেকে মুক্তি পেতে ঘরে বসে এই পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করুন এবং মিল্ক ফেসিয়াল করুন।

দুধের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত অনেক উপকারিতা সম্পর্কে আপনি নিশ্চয়ই জানেন, তবে দুধ শুধু স্বাস্থ্যের জন্যই নয়, ত্বকের জন্যও আশীর্বাদের চেয়ে কম নয়। বিশেষ করে ত্বকের গভীর ময়েশ্চারাইজিং এবং কালো দাগ দূর করতে দুধ ব্যবহার করা যেতে পারে।

ব্রণের কারণে মুখে অনেক সময় দাগ তৈরি হয় এবং অনেক চেষ্টার পরও তা দূর হয় না। এমন অবস্থায় মুখের সৌন্দর্য ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং এই দাগগুলো দেখতে খুবই কুৎসিত দেখায়। আপনি বাজারে অনেক ক্রিম, ফেসিয়াল কিট এবং ফেস মাস্ক পাবেন যা ব্রণের দাগ দূর করার দাবি করে। কিন্তু কখনো কখনো সেগুলো কোনো কাজে আসে না।

অবশ্যই পড়ুনঃ সহজে ব্রণের দাগ দূর করার উপায়

এমন পরিস্থিতিতে ঘরে বসেই মিল্ক ফেসিয়াল করে দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন নিন এবং এই কদর্য ব্রণের দাগ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এর জন্য আপনাকে কিছু সহজ পদক্ষেপ এবং ঘরোয়া প্রতিকার অনুসরণ করতে হবে।

দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন

মুখ পরিষ্কার করাঃ মুখ পরিষ্কার করা ফেসিয়াল করার প্রথম ধাপ। তাই সবার আগে দুধ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। দুধে ল্যাকটিক অ্যাসিড থাকে। এর মাধ্যমে ত্বককে যেমন গভীরভাবে ময়েশ্চারাইজ করা যায়, তেমনি ত্বকে মরা চামড়ার স্তর জমে থাকলে তাও দূর করা যায়। এ জন্য প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে কাঁচা দুধে একটি তুলোর প্যাড ডুবিয়ে মুখ পরিষ্কার করতে হবে। এতে ত্বকও পরিষ্কার হয় এবং ত্বকের ছিদ্রে জমে থাকা ময়লাও পরিষ্কার হয়।

দুধ স্ক্রাবঃ কাঁচা দুধ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার পর দুধের স্ক্রাব দিয়ে ত্বককে এক্সফোলিয়েট করতে হবে। এটি ত্বকে উজ্জ্বলতা আনে এবং ত্বককে গভীরভাবে পরিষ্কার করে। দুধের স্ক্রাব তৈরি করতে আপনি এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে পারেন-

উপাদানঃ

  • 1 টেবিল চামচ দুধ
  • 1 টেবিল চামচ চালের গুঁড়া

পদ্ধতিঃ প্রথমে চাল পিষে গুঁড়ো করে নিন। এবার একটি পাত্রে চালের গুঁড়া নিয়ে তাতে দুধ দিন। এই মিশ্রণটি ভালো করে মিশিয়ে মুখে স্ক্রাব করুন। ২ মিনিট মুখে স্ক্রাব করার পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলতে পারেন। এভাবে দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন নিন।

দুধের ফেসপ্যাক How to Make Milk Facepack

ত্বক স্ক্রাব করলে ত্বকের ছিদ্র খুলে যায়, সেক্ষেত্রে সেগুলো বন্ধ করা প্রয়োজন, অন্যথায় খোলা ছিদ্র আবার নোংরা হয়ে যেতে পারে, যার ফলে ব্রণের সমস্যা হতে পারে। তাই স্ক্রাব করার পর অবশ্যই ফেসপ্যাক লাগান। দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন নিতে আপনি দুধ থেকে তৈরি ত্বক ফর্সাকারী ফেসপ্যাক তৈরি করে ঘরেই লাগাতে পারেন। এটি তৈরির পদ্ধতি নিম্নরূপ-

উপাদানঃ

  • 1 টেবিল চামচ দুধ
  • 1 চা চামচ বেসন
  • 1 চা চামচ চন্দন গুঁড়া
  • এক চিমটি হলুদ

পদ্ধতিঃ প্রথমে একটি পাত্রে বেসন নিন। তারপর বেসন এর মধ্যে চন্দনের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। তারপর তাতে হলুদ ও দুধ দিন। একটি মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন এবং মুখে লাগান। ৩০ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
এছাড়াও পড়ুন: ঘরে বসে সহজে মেকআপ রিমুভার তৈরি করুন

কিভাবে কালো দাগ পরিত্রাণ পাবেন Remove Dark Spot

ফেসপ্যাক লাগানোর পর ত্বক ময়শ্চারাইজ করুন। ত্বকে দুধ লাগালে তা হাইড্রেটেড থাকে এবং ত্বকের শুষ্কতাও চলে যায়। আপনি চাইলে দুধের ক্রিমও ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। আসুন আপনাকে বলি কিভাবে করবেন-

উপাদানঃ

  • 1 চা চামচ দুধের ক্রিম
  • 1 চা চামচ লেবু

পদ্ধতিঃ একটি পাত্রে ক্রিম নিয়ে তাতে লেবুর রস মিশিয়ে নিন। যদি আপনার ত্বক খুব শুষ্ক হয়, তবে আপনি আধা চা চামচ মধুও যোগ করতে পারেন। এরপর এই মিশ্রণটি দিয়ে মুখে ম্যাসাজ করতে পারেন। ৩-৪ মিনিট মুখে ম্যাসাজ করার পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন নিতে সপ্তাহে একবার মিল্ক ফেসিয়াল করতে হবে। এটি করা সহজ এবং এটি খুব কার্যকর। এভাবে নিয়মিত ৪-৫ সপ্তাহ করলে মুখের কালো দাগ হালকা হয়ে ধীরে ধীরে চলে যাবে। সংবেদনশীল ত্বকের মহিলাদের ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া দুধের ফেসিয়াল করা উচিৎ নয়।

আপনি যদি আমদের আলোচিত দুধ দিয়ে ত্বকের যত্ন নেয়ার গাইডলাইনটি পছন্দ করেন, তাহলে শেয়ার করুন। এছাড়াও, এই ধরনের আরও বিউটি হ্যাক পড়তে শপ্নিকের সাথে যুক্ত থাকুন।

আরো পড়ুনঃ

5/5 - (12 votes)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button