স্বাস্থ্য

রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা এবং নিয়ম

আপনি প্রায়শই ডাক্তারকে বলতে শুনেছেন যে রাতে ঘুমানোর প্রায় 2 বা 3 ঘন্টা আগে খাবার খান এবং তারপরে হাঁটুন। কিন্তু জানেন কি রাতে ঘুমানোর আগে রসুন খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী? হ্যাঁ, রসুনে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম, ফসফরাস, কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, জিঙ্ক, কপার, সেলেনিয়াম, ফোলেট, ভিটামিন বি৬, ভিটামিন ই, ভিটামিন সি, সোডিয়াম প্রভৃতি। তাই রসুন শরীরকে অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

আজকের পোস্টটি রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা বিষয়ে। আজ আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে জানাবো কিভাবে রাতে ঘুমানোর আগে এক কোয়া রসুন খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। এ জন্য আমরা কথা বলেছি একজন বিশেষজ্ঞ আয়ূর্বেদিক ডাক্তারের সঙ্গে

রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা

বাড়িতে রসুন সাধারণত মসলা হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এছাড়া সবজির স্যুপের মাধ্যমেও রসুন খেতে পারেন। কেউ কেউ রসুনের চাটনি দিয়ে খাবারের স্বাদ বাড়ায়, তবে রাতে ঘুমানোর আগে বা সকালে ঘুম থেকে ওঠার আগে খালি পেটে দুই কোয়া রসুন কুসুম গরম পানির সাথে খেতে পারেন। রাতে ঘুমানোর আগে নিয়মিত একটি বা দুটি কুঁড়ি খেতে পারেন। এছাড়াও রাতে রসুনের নির্যাস গ্রহণ একটি ভাল বিকল্প। চলুন জেনে নিই রাতে রসুন খাওয়ার উপকারিতা গুলো-

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করেঃ যে ব্যক্তি রাতে ঘুমানোর আগে রসুন খান তার কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে। রসুন শরীরের ক্ষতিকারক কোলেস্টেরল অর্থাৎ LDL এর মাত্রা কমায়। এছাড়াও, এর ভিতরে পাওয়া অ্যান্টি-হাইপারলিপিডেমিয়া বৈশিষ্ট্যগুলি কোলেস্টেরল কমাতে কার্যকর। যাইহোক, উচ্চ কোলেস্টেরলের সাথে লড়াই করা লোকেরা রাতে ঘুমানোর আগে তাদের খাদ্যতালিকায় রসুন যোগ করার আগে একবার বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করা উচিৎ।

ওজন কমায়ঃ রাতে ঘুমানোর আগে রসুন খেলে ওজন কমতে পারে। হ্যাঁ, এর অন্দরে পাওয়া অ্যান্টি-ওবেসিটি বৈশিষ্ট্য শরীর থেকে অতিরিক্ত চর্বি দূর করতে কার্যকর। সেই সঙ্গে শরীরে চর্বি জমার সমস্যাও দূর হয় এর সেবনে।

রসুন ঠান্ডা ও জ্বর দূর করেঃ ঠাণ্ডা, সর্দি, জ্বর প্রভৃতি সমস্যায় থাকলে রাতে ঘুমানোর আগে রসুন খান। এটি খাওয়ার মাধ্যমে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার কার্যকারিতা উন্নত হয়। এটি জ্বর, সর্দি, সর্দি ইত্যাদি সমস্যা থেকেও মুক্তি দেয়। এছাড়া রাতে ঘুমানোর আগে রসুনের নির্যাস খাওয়া যেতে পারে, এটি জ্বর দূর করতেও উপকারী।

হাড়ের জন্য উপকারিঃ আপনি যদি রাতে ঘুমানোর আগে কাঁচা রসুন খান তবে তা শরীরে ক্যালসিয়াম শোষণে সহায়ক। এ ছাড়া বাতের সমস্যা, যা হাড়ের দুর্বলতার রোগ, তাতেও আরাম পাওয়া যায়। রসুনের ভিতরে সালফার, অ্যান্টি আর্থ্রাইটিস প্রোপার্টিজ, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রভৃতি পাওয়া যায়, যা হাড়কে মজবুত করে, বাতের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে।

ইমিউন সিস্টেমের জন্য রসুনঃ আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে রসুন অনেক সাহায্য করে। রাতে ঘুমানোর আগে একটি বা দুটি কুঁড়ি নিন। এতে করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। এর অভ্যন্তরে এমন অনেক যৌগ পাওয়া যায়, যা শুধু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় না, রোগ প্রতিরোধক কোষের সংখ্যাও বাড়ায়।

দাঁতের জন্য উপকারিঃ রাতে ঘুমানোর আগে রসুনের এক বা দুই কোয়া খেলে এর ভিতরে পাওয়া অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল ক্যাভিটি দূর করতে উপকারী। এছাড়াও, রসুন মাড়ির রোগের সাথে লড়াই করতেও সহায়ক। আপনি যদি রাতে ঘুমানোর আগে রসুনের নির্যাস দিয়ে তৈরি টুথপেস্ট ব্যবহার করেন, তাহলে তা দাঁতের ক্ষতির হাত থেকেও রক্ষা করবে।

রসুন স্মৃতিশক্তি বাড়ায়ঃ আপনি প্রায়শই দেখেছেন যে কিছু লোকের ভুলে যাওয়া বা স্মৃতিশক্তি হ্রাসের সমস্যা রয়েছে তারা ভালভাবে চিন্তা করতে পারে না এবং বোঝার ক্ষমতাও তাদের নেই। এমন অবস্থায় রাতে ঘুমানোর আগে রসুনের কুঁড়ি খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়ায়। এটি আলঝেইমারের সমস্যা থেকেও মুক্তি দেয়। এর সেবন ডিমেনশিয়ার ঝুঁকিও কমায়। রসুনের ভিতরে পাওয়া অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের ক্ষমতা বাড়াতে পারে।

দ্রষ্টব্য – উপরে উল্লিখিত পয়েন্টটি দেখায় যে রাতে ঘুমানোর আগে রসুন খাওয়া খুবই উপকারি। কিন্তু রসুন খাওয়ার সময় আপনি যদি কোনো ধরনের অ্যালার্জি লক্ষ্য করেন, তাহলে অবিলম্বে তা খাওয়া বন্ধ করুন। এ ছাড়া আপনি যদি কোনো গুরুতর রোগে ভুগছেন বা বিশেষ ডায়েট অনুসরণ করছেন, তাহলে রাতে আপনার খাদ্যতালিকায় রসুন যোগ করার আগে একবার বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। গর্ভবতী মহিলা এবং স্তন্যদানকারী মহিলাদেরও তাদের ডায়েটে রসুন যুক্ত করার আগে একজন ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা উচিৎ।

4.5/5 - (58 Reviews)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button