ফেসবুক

ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার একাউন্ট খোলার নিয়ম

ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করা হয়েছে মূলত ফেসবুক ইউজারদের ইন্টারেস্ট রিসার্চ করার জন্য। এখানে আপনি ফেসবুক ইউজারদের সব ডাটা পাবেন এবং এখান থেকে আপনার নির্দিষ্ট অডিয়েন্স টার্গেট করতে পারবেন আপনার বিজনেসের জন্য। আপনারা নিশ্চয়ই দেখতে পাচ্ছেন যে, ফেসবুক এখন অনেক বেশি বিজনেস ওরিয়েন্টেড হয়ে গেছে। বিজনেস ওনারদের সফলভাবে বিজনেস করার জন্য এসব ডাটা খুবই কার্যকরি ভূমিকা পালন করে। তাই ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার সম্পর্কে আপনার পরিপূর্ণ ধারণা থাকা প্রয়োজন।

শুধুমাত্র একটি ফেসবুক পেজকে ঘিরে বিজনেস রান করছেন অনেকেই। যাকে আমরা এফ-কমার্স বিজনেস বলে থাকি। ই-কমার্স বা এফ-কমার্স বা যেকোন বিজনেসের জন্য সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সব বিজনেসের কাস্টমাররা ই কোন না কোনভাবে সোস্যাল মিডিয়ার সাথে যুক্ত। আর সোস্যাল মিডিয়ার সবচেয়ে বড় প্ল্যাটফর্ম হল ফেসবুক। তাই প্রতিটি অনলাইন বা অফলাইন বিজনেসের জন্য ফেসবুক মার্কেটিং সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার প্ল্যাটফর্মটি ক্যাম্পেইন রান করার জন্য আমাদের ব্যবহার করতে হবে। প্রশ্ন আসতেই পারে, কেন আমরা পার্সোনাল একাউন্ট ব্যবহার না করে বিজনেস একাউন্ট ব্যবহার করব? এর বেশ কিছু কারণ আছে যেমন, পার্সোনাল একাউন্ট থেকে ক্যাম্পেইন রান করে আপনি কখনোই ভাল রেজাল্ট পাবেন না। বিজনেস একাউন্ট থেকে ক্যাম্পেইন রান করার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল এখানে আপনি একদম স্পেসিফিক অডিয়েন্স টার্গেট করতে পারবেন এবং সবচেয়ে কম খরচে অনেক বেশি পরিমাণ রিচ করতে পারবেন।

বিজনেস একাউন্ট থেকে এড রান করার আরো অনেক সুবিধা রয়েছে যা আপনি আমার পোস্টে প্র্যাক্টিক্যালি দেখতে পাবেন। আগের পোস্ট ফেসবুক পেজ চালানোর নিয়ম এ আপনারা ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার সম্পর্কে সামান্য ধারণা পেয়েছেন। যারা পেজের ওনার আছেন তারা এটি অবশ্যই দেখেন যে, প্রতিটি পোস্টের নিচে বুস্ট নাও বাটন আছে। আপনি যদি মনে করেন, না ভাই আমার এত ঝামেলার দরকার নাই, তাহলে এই বাটনে ক্লিক করে বুস্ট করে নিতে পারেন। এটি একদমই সহজ, কিভাবে করবেন শিখতে আমার লেখা ফেসবুক বুস্টিং এবং কাস্টমার টার্গেটিং পোস্ট টি দেখুন।

আজকের পোস্ট টি ২ধরনের মানুষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ

১। যারা ফ্রিল্যান্সিং শিখছেন

২। যারা বিজনেস করছেন

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার সবচেয়ে সহজ উপায় ফেসবুক মার্কেটিং করা। আমার আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো, এটি অবশ্যই পড়ে নিবেন, যদি ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চান। আর যারা বিজনেস ওনার আছেন তাদের প্রয়োজন হতেই পারে একজন এক্সপার্ট সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটার হায়ার করার। তারা সরাসরি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আর এই পোস্ট টি ভালোভাবে পড়ে বুঝুন, তাহলে আপনার একজন এক্সপার্ট মার্কেটার হায়ার করতে সুবিধা হবে। Hire me. I am selling social media marketing services on fiverr.

এতদিন আমরা জেনেছি যে, আমাদের ফেসবুক বিজনেস পেজে কাউকে এডমিন এক্সেস দেয়া যাবে না। কিন্তু আপনি যদি কাউকে আপনার পেজে কাজ করার জন্য হায়ার করেন আর তাকে যদি এডমিন এক্সেস না দেন তাহলে সে অনেক কাজই করতে পারবে না। যেমন, চ্যাট বট সেটাপ, শপ ডিজাইন এবং আরো অনেক কাজ। আপনার ফেসবুক পেজ সিকিউরিটি নিশ্চিত করবে ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার একাউন্ট। একবার যদি আপনার পেজটি বিজনেস একাউন্টের আন্ডারে নিয়ে আসতে পারেন, তখন কাউকে এডমিন এক্সেস দিলেও আপনার পেজটি আর হ্যাক হবার সম্ভাবনা থাকে না। এবার আপনি নাকে তেল দিয়ে ঘুমাতে পারেন।

তবে এটিও কিছু কিছু বোকামির কারণে হ্যাক হয় যা একটু পরে আমি বলব। তাহলে এবার আসুন জেনে নিই কিভাবে ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার একাউন্ট খুলবো

ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার একাউন্ট খোলার নিয়ম

একাউন্ট খোলার আগে কিছু বিষয় জানতে হবে। আপনার পার্সোনাল একাউন্ট কি ন্যাশনাল আইডি কার্ড দিয়ে ভেরিফাই করেছেন? যদি না করে থাকেন, তাহলে আগে এটি করুন। কেননা ফেসবুক আপনাকে ভেরিফাই না করে বিজনেস ম্যানেজার প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করতে দিবে না। আপনি বিজনেস একাউন্ট খোলার সাথে সাথেই ফেসবুক আপনার আইডি ডিজেবল করে দিবে। চিন্তার কোন কারণ নেই, আপনার এন-আইডি কার্ডের ছবি সাবমিট করে রিভিও রিকোয়েস্ট করবেন আর ২৪ঘন্টার মধ্যে আপনার আইডি একটিভ হয়ে যাবে। খুবই ইজি প্রসেস।

একাউন্ট ক্রিয়েট

বিজনেস ম্যানেজার একাউন্ট ক্রিয়েট করার জন্য আপনাকে https://business.facebook.com/overview এই লিংকে যেতে হবে। নিচের ছবির মত ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।

ypcu1J99kFJhXDEGtVpr45stITbA55SIlyD9DJFo4f7VrlJh1KZaTGfhTSoPiLOyRfXIII5aeC9A5Mk1wq34uxxMvXugETD3

Create Account বাটনে ক্লিক করুন।0WZj RVdF1rE8V 9D0uSwb87XvJeQ6Kj1LsnSlIelUsUeCh7qxOh1FE9GO0pl KmNccxOpf Fk AHpYeU2XYxOuy7vSFZQTBvURUYn0VUYcHFml bqmpeX7oqrCZdTUi gTYhYt

বিজনেস নেম, একাউন্ট নেম এবং আপনার বিজনেস ইমেইল দিয়ে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন। একাউন্ট ক্রিয়েট হয়ে যাবে।

ভেরিফাই

আপনার ইমেইলে তারা ভেরিফিকেশন ইমেইল পাঠাবে। আমি আপনাকে বিজনেস ইমেইলে কাস্টম ইমেইল ব্যবহার করার জন্য সাজেস্ট করব। যদি না পারেন তাহলে জিমেইলে একটি বিজনেস ইমেইল ক্রিয়েট করে নিবেন। আমার একাউন্ট কিভাবে ভেরিফাই করেছি নিচের ছবিতে দেখুন।

S5t J4Io2ADOCPQyhHAMcMD4VIC1yKkSsVqJXKWpYvuZG5aWYy8l67mZzP6TxhQBWShsMAJLkxMxQuT eiOfb mhlmiDbH5mAkyeOjP41x5VlJdtkjgD2GSPV7josyreLnggC nm

আমার ক্ষেত্রে কনফার্ম বাটনে ক্লিক করার পরে আমার আইডি ডিজেবল হয়ে গিয়েছিল। তারপর আমার ফোন নাম্বার এবং এন-আইডি কার্ডের ছবি সাবমিট করে রিভিও রিকোয়েস্ট করেছি। ২৪ ঘন্টার মধ্যেই আমার আইডি একটিভ হয়ে গেছে। আমি আপনাকে প্রথমেই সাজেস্ট করেছি, বিজনেস একাউন্ট খোলার আগে নিজের পার্সোনাল আইডি ভেরিফাই করে নিবেন। তাহলে আর কোন ঝামেলা হবে না।

আপনার আইডি একটিভ হবার পরে আপনি আপনার বিজনেস ম্যানেজার একাউন্টে যান। নিচের ছবির মত facebook ad manager likhe search করুন

ad manager search

এড ম্যানেজার লিংকে ক্লিক করে প্রবেশ করার পরে নিচের ছবির মত ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।

facebook ads manager

Go to Ads Manager বাটনে ক্লিক করুন। আপনার বিজনেস একাউন্টে যেতে হলে বেশিরভাগ সময় আপনি এই প্রসেসে যাবেন।

business account rstricted

এখানে দেখতে পাচ্ছেন আমার কোন একাউন্ট নেই। অথচ আপনারা দেখলেন আমি একাউন্ট খুলেছি। আসলে আমার একাউন্ট আছে কিন্তু ফেসবুক এটা রিভিও করার জন্য রেসট্রিক্ট করে দিয়েছে। আপনাকে এখন রিভিও করার জন্য আবারো রিকোয়েস্ট করতে হবে।

click business account

ছবিতে যেমন দেখতে পাচ্ছেন, আপনার পার্সোনাল এড একাউন্টে ক্লিক করুন। নিচের ছবির মত উইন্ডো আসবে।

restricted from advertising

দেখতে পাচ্ছেন আমাকে রেস্ট্রিক্টেড করে দেয়া হয়েছে। আমি এখন আর কোন ক্যাম্পেইন রান করতে পারব না। See details বাটনে ক্লিক করুন।

see details

এবার Request Review বাটনে ক্লিক করুন।

captcha

ক্যাপচা ফিল আপ করে Continue বাটনে ক্লিক করুন।

upload nid

আপনার এন-আইডি কার্ড আপলোড করে Continue বাটনে ক্লিক করুন।

reveiw request

Continue বাটনে ক্লিক করুন।

review requested

আপনার এড একাউন্ট রিভিও এর জন্য রিকোয়েস্ট করা হয়েছে। এবার আপনি অপেক্ষা করুন। ঠিক ২৪ ঘন্টা পরে আপনার একাউন্ট একটিভ হয়ে যাবে। যেমনটি আমার আইডিতে হয়েছে। তারপর আপনি আগের প্রসেসে বিজনেস একাউন্টে যাবেন। দেখুন আমার একাউন্ট একটিভ হয়েছে।

ad manager active

ফেসবুক পেজে রিচ এবং এনগেজমেন্ট বাড়ানোর একমাত্র উপায় হল অপটিমাইজেশন করা। আপনার পেইজটি অপটিমাইজ করতে ফেসবুক পেজ খোলার নিয়ম এই পোস্ট টি দেখুন। আমি সবকিছু প্র্যাক্টিক্যালি দেখিয়েছি।

Conclusion

ফেসবুক বিজনেজ ম্যানেজার কি এবং কেন ব্যবহার করবেন এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারলেন। আশা করি আপনি সফলভাবে আপনার বিজনেস একাউন্ট খুলতে সক্ষম হয়েছেন। এর পরের পোস্টে বিজনেস একাউন্ট কিভাবে ব্যবহার করবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত থাকবে। আজকের পোস্ট সম্পর্কে আপনার যেকোন প্রশ্ন আমাদের কমেন্ট বক্সে জানান। আমরা আপনার প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিব। অথবা আপনার যেকোন হেল্প প্রয়োজন হলে অবশ্যই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। ধন্যবাদ।

4.2/5 - (28 votes)

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button