স্কিন কেয়ার

মুলতানি মাটির উপকারিতা

বহু যুগ ধরে মুলতানি মাটির ব্যবহার হয়ে আসছে, এটি ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। মুলতানি মাটি হাইড্রেটেড অ্যালুমিনিয়াম সিলিকেটের একটি রূপ। এটি মুলতান অর্থাৎ পাকিস্তানের একটি স্থানে পাওয়া যায়, তাই এর জন্মস্থানের নামানুসারে এর নামকরণ করা হয় মুলতানি। ম্যাগনেসিয়াম, কোয়ার্টজ, সিলিকা, আয়রন, ক্যালসিয়াম, ক্যালসাইটের মতো খনিজ পদার্থ এতে রয়েছে। এটি প্রধানত পাউডার আকারে পাওয়া যায় এবং চুল ও ত্বকের উন্নতিতে ব্যবহৃত হয়। আঘাত ইত্যাদির ক্ষেত্রেও এটি উপকারী। প্রাচীনকালে যখন অন্য কোন চিকিৎসা খুব একটা পাওয়া যেত না, তখন মানুষ ক্ষতস্থানে এটি লাগাত এবং ক্ষত সেরে যেত। এমনকি রাজা-সম্রাটরাও যুদ্ধে যেতেন, তাই তারা এই মাটি তাদের কাছে রাখতেন। তাহলে আসুন এর ব্যবহার সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

মুলতানি মাটির উপকারিতা

ত্বকের জন্য মুলতানি মাটির উপকারিতাঃ মুলতানি মাটির বিশেষ জিনিস হল এটি তৈলাক্ত ত্বকের জন্য খুব ভালো। এর জন্য মুলতানি মাটিতে গোলাপ জল এবং কিছু চন্দন গুঁড়ো মিশিয়ে মুখে লাগান এবং ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একবার এটি করতে ভুলবেন না। মুলতানি মাটি মরা চামড়া দূর করতেও কার্যকর।

যারা ব্রণের সমস্যায় ভুগছেন তারা মুলতানি মাটির প্যাক লাগাতে পারেন। এটি আটকে থাকা ছিদ্র খুলতে সাহায্য করে। নিম পাতার সঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগালে ব্রণের সমস্যা দূর হয়। এটি ত্বককে শক্ত করে এবং টোন করে এবং এটিকে মসৃণ করে। এজন্য মুলতানি মাটিতে ডিম, মধু ও গ্লিসারিন মিশিয়ে মুখে লাগান। 10 মিনিট পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আপনার মুখে পোড়া দাগ থাকলে মুলতানি মাটি লাগাতে পারেন। এর জন্য লেবুর রস ও ভিটামিন ই মিশিয়ে লাগান, কয়েক দিনের মধ্যে দাগ হালকা হতে শুরু করবে। মুলতানি মাটি পেডিকিউর এবং পোস্ট ম্যানিকিউর প্যাকের জন্যও ব্যবহার করা হয়, এটি পা এবং হাতের ক্লান্তি দূর করে।

আপনি যদি উজ্জ্বল ত্বক চান, তাহলে মুলতানি মাটির সাথে টমেটোর রস, চন্দন গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে লাগান। সপ্তাহে দুবার লাগাতে পারেন।

আপনার ত্বক শুষ্ক হলে মুলতানি মাটিতে মধু ও তিনটি আঙ্গুরের রস মিশিয়ে লাগান। এটি ত্বককে যেমন ময়েশ্চারাইজ করবে, তেমনি এতে উপস্থিত অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল গুণাবলী ত্বক সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে। এটি আপনার ত্বকের আর্দ্রতা লক করতে কাজ করে।

মুলতানি মাটি ত্বকের পরিষ্কারক হিসেবেও কাজ করেঃ এটি ত্বকের জন্য ক্লিনজার হিসেবেও কাজ করে। এর জন্য ওটমিল, নিমের গুঁড়া, চন্দন, বেসন ও হলুদের গুঁড়া মিশিয়ে মুখে লাগালে ত্বকে জমে থাকা সমস্ত ময়লা উঠে যায়।

মুলতানি মাটিতে নারিকেলের পানি মিশিয়ে লাগালে সান ট্যানের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। মুলতানি মাটি স্পা বেশ জনপ্রিয়, এটি সান ট্যান দূর করে।

মুখে ব্ল্যাকহেডস বা পিম্পলের সমস্যা থাকলে মুলতানি মাটি লাগান।

চুলের জন্য মুলতানি মাটির উপকারিতাঃ লম্বা, কালো এবং ঘন চুলের জন্য মুলতানি মাটি লাগান। প্রাচীনকালে যখন শ্যাম্পু ইত্যাদি ছিল না তখন মানুষ মুলতানি মাটি দিয়ে চুল ধুতেন। চলুন জেনে নিই কিভাবে এটি চুলের জন্য উপকারী।

চুলে খুশকি থাকলে মুলতানি মাটি ব্যবহার করুন। এ জন্য মুলতানি মাটিতে মেথি বীজের পেস্টলেবুর রস মিশিয়ে চুল ও মাথার ত্বকে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন। ইচ্ছা হলে এর পর শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগান। চুলে উকুনের সমস্যা থাকলে এর প্যাক কার্যকর। আপনার চুল যদি বিভক্ত হয়ে যায়, তাহলে চুলে মুলতানি মাটির প্যাক লাগান।

মুলতানি মাটি হেয়ার প্যাকঃ

চুলের শুষ্কতা নিয়ে সমস্যায় পড়লে মুলতানি মাটিতে দই মিশিয়ে চুলে লাগান এবং ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

চুলে মুলতানি মাটির প্যাক লাগালে চুল ভাঙা বন্ধ হয় এবং চুলে আর্দ্রতা বজায় থাকে।

আপনার চুল যদি সম্পূর্ণ প্রাণহীন হয়ে যায় এবং এতে কোনো স্টাইলিং কাজ না করে, তাহলে মুলতানি মাটিতে তিলের তেল এবং সামান্য দই মিশিয়ে এই প্যাকটি চুলে লাগান।

যদি আপনার মাথার ত্বক বেশি তৈলাক্ত হয়, তাহলে মুলতানি মাটির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে লাগান, এতে চুলের আঠালো ভাব দূর হয়।

যদি আপনার চুল অকালে পাকা হয়ে যায়, তাহলে মুলতানি মাটিতে আমলা পেস্ট মিশিয়ে চুলে লাগান।

মুলতানি মাটির স্বাস্থ্য উপকারিতাঃ

মুলতানি মাটি রক্ত ​​প্রবাহকে ত্বরান্বিত করে। এর জন্য মুলতানি মাটির প্যাক সারা শরীরে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে তারপর ধুয়ে ফেলুন।

আপনি যদি অতিরিক্ত তাপ অনুভব করেন, তাহলে এই পেস্টটি আপনার শরীরে লাগান। এটি ত্বককে শীতল করে।

কোনো আঘাত লাগলে বা কোনো ধরনের অ্যালার্জি হলে মুলতানি মাটির প্যাক সঙ্গে সঙ্গেই কার্যকর।

মুলতানি মাটির অপকারিতা

মুলতানি মাটির শীতল প্রভাব রয়েছে, তাই ঠান্ডা আবহাওয়ায় এটি ব্যবহার করবেন না।

মুলতানি মাটি খেলে কিডনিতে পাথর হতে পারে।

যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের মুলতানি মাটির অতিরিক্ত ব্যবহার এড়িয়ে চলা উচিৎ। যদি প্রয়োগ করতেই হয় তবে বাদাম দুধ দিয়ে এই প্যাকটি লাগান।

লাগানোর পর ময়েশ্চারাইজার লাগাতে ভুলবেন না, এটি ত্বককে ময়েশ্চারাইজড রাখবে।

মুলতানি মাটি সপ্তাহে দু’বারের বেশি ব্যবহার করা উচিৎ নয়।

আরো পড়ুনঃ মুলতানি মাটি দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায় ও নিয়ম

5/5 - (45 Reviews)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button