স্বাস্থ্য

পিরিয়ড আপনার ত্বককে কিভাবে প্রভাবিত করে জানেন?

আমরা খুব ভালো করে বুঝি যে পিরিয়ড আপনার জন্য অনেক অস্বস্তি এবং ব্যথা নিয়ে আসে, যেমন ক্র্যাম্প, পিঠে ব্যথা, মাথাব্যথা ইত্যাদি। এই সবের মতো কম ছিল না, আমরা আপনাকে যা বলতে যাচ্ছি তা হল ত্বকেও এর প্রভাব রয়েছে। হ্যাঁ! মাসিক চক্রের সময় ত্বকের সঠিক যত্ন নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ নয়তো আপনার ত্বকের ক্ষতি হতে পারে!

এই কারণেই আমরা আপনাকে বিশেষ করে ত্বকের যত্নের এমন টিপস বলছি, যা আপনি আপনার মাসিকের সময় চেষ্টা করতে পারেন।

ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যায়: পিরিয়ডের সময় ত্বক তৈলাক্ত মনে হতে পারে। ত্বক তৈলাক্ত হলে আরও তৈলাক্ত হতে পারে। অতএব, এই সময়ে আপনার ত্বককে ভালোভাবে এক্সফোলিয়েট এবং স্ক্রাব করতে ভুলবেন না, যাতে আপনার ত্বকের ছিদ্রগুলি আটকে না যায় এবং আপনার ব্রণের সমস্যা না হয়।

শুষ্ক ত্বককে বিদায় বলুন: যদি আপনার ত্বক সাধারণত শুষ্ক এবং প্রাণহীন হয়ে যায়, তবে আপনার হরমোনগুলি পিরিয়ডের সময় এটিকে আরও খারাপ করতে পারে। তাই, আপনার ত্বকে আর্দ্রতা ধরে রাখতে হাইড্রেটিং জেল বা ময়েশ্চারাইজার লাগাতে ভুলবেন না। আপনি আপনার ত্বকে চাপা নারকেল, এপ্রিকট বা আরগান তেলের মতো ক্রিমও ব্যবহার করতে পারেন।

সঠিক এবং স্বাস্থ্যকর খাদ্য: পিরিয়ডের ব্যথায় কাঁপানোর সময় চিপস বা রসগুল্লা খেলে আমাদের আরাম পাওয়া যায়। মনে হচ্ছে এটা একটা পুরস্কার। হ্যাঁ! আমরা জানি, কিন্তু আপনি কি জানেন যে এই ধরনের অস্বাস্থ্যকর খাবার আপনার ত্বকে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে? আমরা জানি যে আপনিও এগুলি খাওয়া কমাতে চান এবং এটি করার ফলে আপনার আসল প্রতিদান হবে যে আপনার ত্বক সম্পর্কিত সমস্ত সমস্যা আপনার থেকে দূরে থাকবে।

ম্যাসেজ: আপনার পিরিয়ডের সময় নিজেকে একটি আরামদায়ক ম্যাসাজ ট্রিট দিন। এটি শুধু আপনার শরীরে রক্ত ​​প্রবাহের উন্নতি ঘটাবে না, সেই সাথে আপনার ত্বককে করে তুলবে উজ্জ্বল ও উজ্জ্বল। আপনি যদি কম বাজেটে এটি করতে চান, তাহলে একটি ভালো হাইড্রেটিং ক্রিম নিন এবং সারা শরীরে এবং মুখে লাগিয়ে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল করুন।

নিয়মিত যত্ন নিন: আপনি যদি নিয়মিত আপনার ত্বকের যত্ন না নেন তাহলে ভালো ফলাফল আশা করা যায় না। বিভিন্ন উপায় চেষ্টা করার পরে, আপনার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত একটি চয়ন করুন এবং নিয়মিত এটি অনুসরণ করুন। এই পরিশ্রমের সেরা ফল পাবেন।

আরো পড়ুনঃ

5/5 - (17 Reviews)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button